Sokaler Hasi
Lifestyle

কাঁচামরিচের পুষ্টিগুণ

যারা ঝাল খেতে ভালোবাসেন, তাদের জন্য সুখবর। কাঁচামরিচে রয়েছে প্রচুর পুষ্টিগুণ। কাঁচামরিচ সাধারণত কাঁচা, রান্না বা বিভিন্ন ভাজিতে দিয়ে খাওয়া হয়।কাঁচা মরিচ খেতে ঝাল লাগলেও এর উপকারিতা কিন্তু বেশ মিষ্টি। কাচাঁমরিচে আছে ভিটামিন এ, সি, বি-৬, আয়রন, পটাসিয়াম ও কার্বোহাইড্রেট। 

সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, ঠিক যেমন দাঁতে ব্যথা কমাতে লবঙ্গের কোনো জুড়ি নেই, তেমনি নিয়মিত কাঁচামরিচ খেলে কমে হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা। কাঁচামরিচ খাওয়ার তিন ঘণ্টার মধ্যেই আপনার শরীরের মেটাবলিজম বৃদ্ধি পায়। কাঁচামরিচ শরীরের মেটাবলিজম ক্ষমতা ৫০% বেশি বৃদ্ধি করতে সক্ষম। গবেষণায় দেখা গেছে, যারা কাঁচামরিচ খান না তাদের তুলনায় মরিচপ্রেমীদের মৃত্যুর সম্ভাবনা প্রায় ২৩ শতাংশ কম। ইতালির মোলাইস অঞ্চলের প্রায় ২২,৮১১ জন নাগরিকের ওপর করা জরিপের ভিত্তিতে এ রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। কাঁচামরিচে আছে অ্যান্টি অক্সিডিয়েন্ট যা ক্যান্সার প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে।

ক্যান্সারের সাথে লড়াই করতে পারে কাঁচামরিচে উপস্থিত অ্যান্টি অক্সিডিয়েন্ট। সাইনাসের সমস্যা, মাথাব্যথা, বা ঠান্ডা লাগা সারাতে জুড়ি নেই কাঁচামরিচের। কাঁচামরিচে আছে ভিটামিন সি, যা মাড়ি ও চুলের সুরক্ষা করে। নিয়মিত কাঁচামরিচ খেলে নার্ভের বিভিন্ন সমস্যা কমে। ত্বকে সহজে বলিরেখা পড়ে না।

কাঁচামরিচের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন সি শরীরকে জ্বর, সর্দি, কাশি ইত্যাদি থেকে রক্ষা করে।যারা অতিমাত্রায় গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় ভুগছেন তারা কাঁচামরিচ খেলে গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এই ঝাল খেলে আপনার কোনো ক্ষতি হবে না। কারণ কাঁচামরিচের ঝাল ব্যাথা সারাতে দারুণ কাজ করে।

Related posts

কাঁঠালের কি কি উপকারিতা তা এখনি জেনে নিন

admin

বর্ষায় উজ্জ্বল ত্বক রাখবেন যেভাবে

admin

বেগুনের যত উপকারিতা ।

admin

Leave a Comment